• গ্রাজুয়েটদের মাল্টিস্কিলড হতে হবে : শিক্ষা উপমন্ত্রী


    স্টাফ রিপোর্টার : শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক সমস্যা ছিল। বর্তমান উপাচার্যের নেতৃত্বে এটিতে আমূল পরিবর্তন হয়েছে। আজকে যে মডেল কলেজ প্রকল্পের আওতায় ৮টি কলেজকে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। এটি মেধার স্বীকৃতি বলে মনে করি। দেশে প্রতি বছর যে বিপুল সংখ্যক গ্রাজুয়েট বের হচ্ছে তার সিংহ ভাগই বের হচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। এসব গ্রাজুয়েটদের মাল্টিস্কিলড হতে হবে। উন্মুক্ত বিশ্বে টিকে থাকতে হলে মাল্টিস্কিলড হওয়া ছাড়া কোন বিকল্প নেই।

    শনিবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে মডেল কলেজ প্রকল্পের অধীন নির্বাচিত ৮টি প্রাক মডেল কলেজকে প্রযুক্তি সহায়তা, পুস্তক ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

    শিক্ষার মানোন্নয়ন করাই এখন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার বলে জানিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও অনুষ্ঠানের সভাপতি প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ। তিনি বলেন, ‘শিক্ষার গুণ ও মান নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যেই মডেল কলেজ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এই মডেল কলেজ প্রকল্প জাতীয় ক্ষেত্রে শিক্ষার মানোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’

    উপাচার্য বলেন, ‘সরকারি কলেজগুলোর চেয়ে বেসরকারি কলেজ নানা দিক থেকে পিছিয়ে আছে। তাই প্রাথমিকভাবে বেসরকারি কলেজগুলোকেই মডেল কলেজ প্রকল্পের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এরফলে অন্যান্য কলেজগুলো এসব কলেজের বৈশিষ্ট্যগুলোকে অনুসরণ করবে।’

    উপাচার্য আরো বলেন, ‘আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব তৈরি করার লক্ষ্যে শিগগিরই ভাইস চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড চালু করতে যাচ্ছি। এসব উদ্যোগ গ্রহণ করার ফলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভাল ফলাফল অর্জনে ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হবে।’

    অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব সোহরাব হোসাইন। স্বাগত বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মশিউর রহমান। উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন।

    অনুষ্ঠানে ৮টি বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষের হাতে প্রাক-মডেল কলেজের সনদ ও ৮২ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তির আর্থিক অনুদান তুলে দেয়া হয়। ৮টি কলেজ হচ্ছে- ঢাকার ঢাকা কমার্স কলেজ, লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, সিদ্ধেশরী গার্লস কলেজ, লালমনিরহাটের উত্তরবাংলা কলেজ, কুষ্টিয়ার দৌলাতপুর কলেজ, টাঙ্গাইলের সখিপুর রেসিডেনশিয়াল মহিলা কলেজ, কিশোরগঞ্জের রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ, বগুড়ার সৈয়দ আহম্মদ কলেজ।

    Spread the love
    Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial