• কৃষি গবেষণায় গণহত্যা দিবস পালিত


    গাজীপুর প্রতিনিধি : যথাযোগ্য মর্যাদা এবং নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে (বিএআরআই) সোমবার ‘২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস-২০১৯’ পালিত হয়েছে। দিবসটি পালন উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে ছিল আলোচনা সভা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার, শহীদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দোয়া ও প্রার্থনা অনুষ্ঠান এবং বিএআরআই’র প্রধান কার্যালয়ের সকল অফিস এবং আবাসিক এলাকায় প্রতীকি ব্ল্যাক আউট।

    দিনব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সকালে ইনস্টিটিউটের কাজী বদরুদ্দোজা মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

    বক্তব্যে বিএআরআই মহাপরিচালক ড. আবুল কালাম আযাদ বলেন, ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে বাঙালী জাতি এক কঠিন নির্মমতার মধ্য দিয়ে রাত্রি যাপন করেছিল। এই কালো রাতে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী নিরস্ত্র বাঙালীদের উপর ঝাপিয়ে পড়েছিল এবং সেদিনই বাঙালী জাতি বুঝতে পেরেছিল যুদ্ধ বা সংগ্রাম করে আমাদের স্বাধীনতা অর্জন করতে হবে। ২৫ মার্চ যে গণহত্যা আরম্ভ হয়েছিল তা আমাদের বিজয় দিবস পর্যন্ত চলেছে এবং সব শ্রেণীর মানুষ এই গণহত্যার শিকার হয়েছে।

    তিনি বলেন, আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম জানুক এই দেশ, এই পতাকা এমনি এমনি আসেনি। তার জন্য আমাদের আত্মত্যাগ করতে হয়েছে, জীবন দিতে হয়েছে, রক্ত দিতে হয়েছে। আর এর মাধ্যমে আমরা যে পতাকা পেয়েছি তা যেন সারা জীবনের জন্য সমুন্নত রাখতে পারি এজন্যই এই দিবসের আয়োজন।

    ইনস্টিটিউটের পরিচালক (সেবা ও সরবরাহ) ড. মদন গোপাল সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ) জেবুন নেছা ও পরিচালক (পরিকল্পনা ও মূল্যায়ন) ড. বাবু লাল নাগ।

    এছাড়াও অনুষ্ঠানে ইনস্টিটিউটের পরিচালকবৃন্দ, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, বারি বিজ্ঞানী সমিতি (বারিসা), বারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি (বারিকা), বারি ৪র্থ শ্রেণী কল্যাণ সমিতি (বারিচা), ডিপ্লোমা কৃষিবিদ পরিষদের নেতৃবৃন্দ এবং ইনস্টিটিউটের সকল স্তরের বিজ্ঞানী, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    Spread the love
    Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial