• ব্রেকিংনিউজ: নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে হবে : মির্জা ফখরুল     ::     গাজীপুরে প্রতারনার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ     ::     সাভারের ট্যানারী বর্জ্যের পানিতে স্থানীয়দের দুর্ভোগ চরমে     ::     তাজউদ্দীন মেডিকেল কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা     ::     ঐতিহাসিকভাবে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     ::    
    03_-1_2017-Mym-BCL-Arif

    ছাত্রলীগের একজন কর্মী হওয়াটাই অনেক বেশি গৌরবের : আব্দুল্লাহ আল মামুন আরিফ


    image_pdfimage_print

    আনিসুর রহমান ফারুক, ময়মনসিংহ : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া এই সংগঠন গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যে উদ্ভাসিত। দেশের স্বাধীকার ও স্বাধনীতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে জাতির প্রয়োজনে সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে ছাত্রলীগ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে আজ পর্যন্ত দেশের প্রয়োজনে কাজ করছে এ সংগঠনটি। সর্বশেষ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন, ওয়ান ইলেভেনের সময় অন্য কোনো ছাত্র সংগঠন মাঠে না থাকলেও ছাত্রলীগ ছিল সক্রিয়। ছাত্রলীগের একজন কর্মী হওয়টাই অনেক বেশি গৌরবের বলে জানান ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন আরিফ।

    জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রলীগ ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। ৪ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রলীগের উদ্যোগে দিনব্যাপী নানা আয়োজনে নতুন বছরের ভাবনা ও অঙ্গীকার নিয়ে ছাত্রলীগকে সক্রিয় করতে একাট্টা হয়ে দিনটি পালন করবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

    তরুণ আওয়ামীলীগ নেতা ও ময়মনসিংহ পৌরসভার জনপ্রিয় মেয়র ইকরামূল হক টিটুর আস্থাবাজন ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রলীগের কর্মীবান্ধব সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন আরিফ। গত ২০১৪ সালের ৩১ মে ময়মনসিংহ ছাত্রলীগের সম্মেলনে রের্কড সংখ্যক লোক নিয়ে শোডাউন করে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে চমক সৃষ্টি করেছিলেন ছাত্রলীগের বর্তমান এ সভাপতি। কর্মীবান্ধব নেতা হিসেবে তাঁর ব্যাপক পরিচিতি থাকলেও ছাত্রলীগের রাজনীতিতে তাঁর উত্থানে জেলার অনেক নেতারাই চমকে গিয়েছিল।

    আরিফ বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরণে ছাত্রলীগ সক্রিয় ভ‚মিকা রাখছে। আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। ছাত্রলীগ সব সময়ই দক্ষ কর্মী তৈরি করে। ভবিষ্যতেও এমন ধারা অব্যাহত থাকবে।

    আরিফ আরও বলেন, ২০১৭ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে নিরক্ষর মুক্ত করার অঙ্গিকার নিয়েছে আমাদের ছাত্রলীগ। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিরক্ষরমুক্ত বাংলাদেশ উপহার দিতে চায় এ সংগঠনটি।