• ২৬ মার্চ মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী


    গাজীপুর প্রতিনিধি : আগামী ২৬ মার্চ মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি। তিনি শনিবার বিকেলে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কড্ডা এলাকায় সামিট গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় নির্মিত কালাকৈর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন তিনতলা ভবন উদ্বোধন ও হস্তান্তর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন দাবি করেন।

    মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আরো বলেন, আগে যে তালিকা করা হয়েছিল সেখানে ভুলক্রমে যারা আওতাভূক্ত নন তাদের নাম এসেছে, আবার অনেকে যাদের নাম আওতাভূক্ত হওয়ার কথা তাদের নাম বাদ পড়েছে। সেজন্য আমরা তালিকা প্রকাশের কাজ ৩ সপ্তাহ পিছিয়ে দিয়েছি, এ মাসের ৩০ তারিখে সেটা হবে। কারো নাম ভুলভাবে বাদ গেলে তিনি যদি সেটি আমাদের নজরে আনেন তবে তা সংশোধন করব। ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে তালিকা প্রকাশ করে জাতির সামনে সেটি উপস্থাপন করা হবে, আপত্তি গ্রহণের জন্য ৩০ দিন সময় দেয়া হবে। আপত্তি না থাকলে ২৮ ফেব্রুয়ারি মধ্যে আমরা খসরা তালিকা প্রকাশ করব। ইনশাল্লাহ ২৬ মার্চ আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করব। কারো ব্যাপারে যদি তদন্তাধীন থাকে সেই তদন্ত নিস্পত্তির পর তারা যদি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বিবেচিত হন, তবে তারা সংযুক্ত হবেন বলে জানান মন্ত্রী।

    স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও স্কুল কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি লেফটেন্যান্ট কর্ণেল (অব:) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, সামিট গাজীপুর-২ পাওয়ার এবং এইস অ্যালায়েন্স পাওয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো: মোজাম্মেল হোসেন, গাজীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ মোফাজ্জল হোসেন, কালাকৈর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারজানা আক্তার প্রমুখ।

    অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সামিট গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান লতিফ খান, সামিট পাওয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক লে. জে. (অব.) প্রকৌশলী আবদুল ওয়াদুদ, জিএমপির ডিসি অপরাধ (উত্তর) ও মিডিয়া জাকির হাসানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

    সাবেক মন্ত্রী লে. কর্ণেল (অব.) মোহাম্মদ ফারুক খান বলেন, শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষার উপর সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশ বিশে^র কাছে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে। বাংলাদেশ শীঘ্রই বিশ্বের উন্নত ৩০ দেশের তালিকায় স্থান করে নিবে। দেশে গ্রাম ও শহরের ভেদাভেদ থাকবে না। আমরা সে লক্ষ্য নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছি।

    গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন বাঙ্গালী জাতিকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবেনা। নানা প্রতিক‚লতার মধ্য দিয়ে তিনি পদ্মা সেতুসহ নানা উন্নয়ন কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন করেছেন। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনকেও আধূনিক ও গ্রীণ সিটি করার কার্যক্রম এগিয়ে চলছে।

    এর আগে মন্ত্রী ফিতা কেটে বিদ্যালয়ের নবনির্মিত তিন-তলা বিশিষ্ট ভবন উদ্বোধন করেন। সামিট গ্রুপের পক্ষ থেকে সামিট গাজীপুর-২ পাওয়ার এবং এইস অ্যালায়েন্স পাওয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো: মোজাম্মেল হোসেন গাজীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ মোফাজ্জল হোসেনকে এই জমিসহ স্কুল ভবনটি হস্তান্তর করেন।

    অনুষ্ঠানে সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, শিক্ষাবিদ, আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা অংশ গ্রহণ করেন।

    আয়োজকরা জানান, প্রায় ৫ কোটি ৫৭ লাখ টাকা ব্যায়ে সামিট গ্রæপের পৃষ্ঠপোষকতায় তিনতলা বিশিষ্ট এ স্কুল ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছে। বিদ্যালয়ে সাইন্স ল্যাব ও কম্পিউটার ল্যাবের জন্য আলাদা কক্ষসহ ১০টি শ্রেণী কক্ষ, গ্রন্থাগার, ক্যান্টিন, অভিভাবকদের জন্য বিশ্রামাগারসহ আধুনিক সুযোগ সুবিধা ও শিক্ষার অন্যান্য সুবিধাদি রয়েছে।

    Spread the love