• ব্রেকিংনিউজ: গাজীপুরে প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন     ::     আজ অমর একুশে, প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা     ::     আগামী নির্বাচন যথাসময়েই অনুষ্ঠিত হবে : প্রধানমন্ত্রী     ::     দেশের জাতীয় নির্বাচন আরো সমৃদ্ধশালী হোক : প্রধানমন্ত্রী     ::     নেতৃত্বহীন বিএনপির নেতারা এখন নতুন দলের সন্ধানে     ::    
    Faridpur-Inion

    ফরিদপুরে ৩৫ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের আবাদ শুরু


    image_pdfimage_print

    ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুর জেলায় চলতি রবি মৌসুমে মুড়িকাটা পেঁয়াজের আবাদ শুরু হয়েছে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে অপেক্ষাকৃত উচু জমিতে কার্তিক মাসের প্রথম সম্পাহ থেকে শুরু হয়েছে মুড়িকাটা পেঁয়াজের আবাদ। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না এলে পেঁয়াজের বাম্পার ফলন হবে বলে জানিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। নতুন পেঁয়াজ উঠার সময় বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানী না করার আহবান চাষীদের।

    ফরিদপুর জেলার চরঞ্চলের চাষীরা এখন মুড়িকাটা পেঁয়াজ আবাদে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পেঁয়াজ আবাদে বেশি লাভ হওয়ায় দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ফরিদপুর অঞ্চলে পেঁয়াজের আবাদ। উন্নত জাত এবং মানসম্পন্ন পেঁয়াজ উৎপাদনের জন্য ফরিদপুর জেলা দেশের শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। মৌসুমের শুরুতেই অতিবৃষ্টির কারণে কিছুটা ক্ষতির সম্মুখিন হয় চাষীরা। বৃষ্টির পানি শুকিয়ে যাওয়ার সাথে সাথে চাষীরা পুনরায় পুরোদমে পেঁয়াজ আবাদে ব্যস্ত সময় পার করছেন। চাষীরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন নতুন করে পেঁয়াজের বীজ রোপন, পেঁয়াজ খেতে পানি দেওয়া ও খেত পরিচর্যার কাজে। ফরিদপুর জেলায় তিন ধরনের পেঁয়াজের আবাদ হয়ে থাকে। মুড়িকাটা পেঁয়াজ, হালি পেঁয়াজ ও দানা পেঁয়াজ।

    Faridpur-Inion-2

    ফরিদপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, চলতি বছর ফরিদপুর জেলায় ৩৫ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ আবাদের লক্ষ্যমাত্র ধরা হয়েছে। এখন চলছে মুড়িকাঠা পেয়াজের আবাদ। ইতিমধ্যেই প্রায় দুই হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের আবাদ সম্পন্ন হয়েছে।

    কৃষকরা জানান, অতিবৃষ্টির কারণে প্রথম দিকে আমাদের পেঁয়াজ কিছুটা নষ্ট হয়ে গেছে। বৃষ্টির পানি শুকানোর পরে নতুন করে ধার-দেনা করে পেঁয়াজের আবাদ করেছে। তারা আশা করছেন ভাল ফলন পাবেন। বর্তমান বাজার দর থাকলে তারা লাভবানও হবেন।

    ফরিদপুর সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আবুল বাসার মিয়া, ফরিদপুরে তিন ধরনের পেঁয়াজ হয়। মুড়িকাটা পেঁয়াজ, হালি পেঁয়াজও দানা পেঁয়াজ। প্রথম দিকে পেঁয়াজের দাম কম থাকলেও এখন বাজারে পেঁয়াজের মূল্য অনেক বেশী। আর সে কারণে চাষীরা ব্যাপকভাবে পেঁয়াজের আবাদ শুরু হয়েছে। আমরা আশা করছি পেঁয়াজের বাম্পার ফল হবে। পেঁয়াজ উৎপাদনের ক্ষেত্রে চাষীদের সব ধরনের সহযোগিতা করে থাকি। এছাড়াও চাষীদের ৪% হার সুদে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

    নতুন পেঁয়াজ উঠার সময় বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানী না করার দাবী জানিয়েছেন ফরিদপুর অঞ্চলের কৃষকেরা। বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানী না করলে ফরিদপুর অঞ্চলের চাষীরা অনেক লাভবান হবেন বলে মনে করছেন তারা।