• ব্রেকিংনিউজ: না ফেরার দেশে নায়করাজ রাজ্জাক     ::     পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে কোন পশু এবারের ঈদে আমদানীর প্রয়োজন নেই : বাণিজ্য মন্ত্রী     ::     আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়, জনগণের উন্নয়ন হয় : প্রধানমন্ত্রী     ::     সড়ক-মহাসড়ক যান চলাচলের উপযোগি রাখতে দিনরাত কাজ চলছে : ওবায়দুল কাদের     ::     আসছে ওয়ালটনের ‘সেলফি কিং’     ::    
    Arrest gb

    গাজীপুরে ডাকাত সর্দারসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব


    image_pdfimage_print

    স্টাফ রিপোর্টার : গাজীপুরে গরু নিয়ে পালানোর সময় বৃহষ্পতিবার র‌্যাবের সঙ্গে ডাকাতদলের বন্দুকযুদ্ধ হয়েছে। এসময় ডাকাত সর্দারসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ডাকাত দলের ৪ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। এঘটনায় দুইটি গরুও গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আটককৃতদের কাছ থেকে ১টি বিদেশী ৭.৬৫ এমএম পিস্তল ও ২ টি ম্যাগাজিন, ৫ রাউন্ড তাজা গুলি ও গুলির ১টি খালি খোসা এবং ২টি বড় ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

    র‌্যাব-১ এর গাজীপুরের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মহিউল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা জানতে পারে গাজীপুর সদর উপজেলার রাজেন্দ্রপুর এলাকার বিভিন্ন বাড়ি হতে গরু চুরি করে ট্রাকে করে ৮-১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল গাজীপুরের জয়দেবপুর চৌরাস্তার দিকে যাচ্ছে এমন গোপন সংবাদ পায় র‌্যাব। এর ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিউল ইসলামের নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের দক্ষিণ সালনা এলাকায় চেকপোষ্ট বসিয়ে ট্রাক তল্লাশি শুরু করে। এমন সময় চোরদের ট্রাকটি সেখানে এলে র‌্যাব সদস্যরা ট্রাকটিকে থামার সংকেত দেয়। কিন্তু তারা গরু ভর্তি ট্রাক নিয়ে দ্রæতগতিতে চেকপোষ্ট অতিক্রম করে চান্দনা চৌরাস্তা হয়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক দিয়ে পালিয়ে যেতে থাকলে র‌্যাব সদস্যরা তাদের পিছু নিয়ে ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে গরুবাহী ট্রাকটি নিয়ে ওই দলটি মহাসড়ক ছেড়ে ইটাহাটা হয়ে কামার বাসুলিয়াগামী গ্রামের একটি সরু রাস্তায় প্রবেশ করে এবং র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে। জবাবে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি করে। এসময় কয়েকজন ট্রাক থেকে নেমে পালিয়ে যায়। এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যরা মজলিশপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে গিয়ে গাড়ি থেকে নেমে পালানোর সময় গরু চোর দলের সদস্য বরগুনা জেলার বেতাগী থানার কলাগাছিয়া গ্রামের মৃত মোতালেব মিয়ার ছেলে মোঃ জলিল (২৫) ও সিরাজগঞ্জের কাজীপুর থানার দত্তবাড়ি গ্রামের মৃত মোহর আলীর ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলামকে (২৮) হাতে নাতে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থকে ১টি বিদেশী ৭.৬৫ এমএম পিস্তল ও ২ টি ম্যাগাজিন, ৫ রাউন্ড গুলি ও ১টি খালি খোসা এবং ২টি বড় ছুরি উদ্ধার করা হয়। পরে এলাকাবাসী গুলিবিদ্ধ আহত অবস্থায় কলাগাছিয়া বাজার এলাকা হতে অজ্ঞাত একজনকে (৩৫) এবং মজলিশপুরের পরিত্যক্ত ডোবা থেকে ঢাকার মুগদা এলাকার খোকন মিয়ার ছেলে ডাকাত দলের সর্দার মোঃ শাওনকে (২৮) আটক করে। আহতদের গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে তারা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য বলে জানিয়েছে। অবৈধ অস্ত্রের দেখিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি করাই তাদের পেশা।