• ব্রেকিংনিউজ: ইতিহাস মুছে ফেলার চেষ্টা করলেও তা মুছে ফেলা যায় না : প্রধানমন্ত্রী     ::     জাতীয় পর্যায়ে এবারও সেরা কর দাতার সম্মাণনা পেলো ওয়ালটন     ::    
    Chomki mp p

    গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস মা ও শিশু স্বাস্থ্যের জন্য বড় হুমকি : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী


    image_pdfimage_print

    স্টাফ রিপোর্টার : মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, প্রতি ১০০ জন গর্ভবর্তী নারীর মধ্যে ২০ জন গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। যা পরবর্তীতে টাইপ টু ডায়াবেটিসে রূপান্তরিত হয়। অনেক ক্ষেত্রে শিশু ও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যা নারী ও শিশু স্বাস্থ্যের জন্য বড় হমকি। একমাত্র সচেতনতা ও পরিকল্পিত গর্ভধারন নারীকে এই দুর্যোগ হতে রক্ষা করতে পারে। তিনি বলেন, ডায়াবেটিস হল সকল রোগের আহবায়ক। ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীরা কিডনী সমস্যা, হৃদরোগ সমস্যা, চোখের সমস্যা সহ নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তিনি মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের মিলনায়তনে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

    বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ কে আজাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির মহাসচিব মোঃ সাইফুদ্দিন, বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির মহাপরিচালক ডাঃ নাজমুন নাহার, ডায়াবেটিক সমিতি ল্যাবরেটরী উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক ডাঃ শুভাগত চৌধুরী প্রমুখ।

    অনুষ্ঠানে ডায়াবেটিক সমিতির মহাসচিব মোঃ সাইফুদ্দিন বলেন, অনেক সময় ডায়াবেটিসে আক্রান্ত শিশুরা পরিবার এবং সমাজে ডায়াবেটিস রোগী হওয়ার কারনে অবহেলার শিকার হয় কিন্তু সেটা উচিত নয়, কারন শিশুরা ডায়বেটিসের জন্য দায়ী নয়। নিয়মতান্ত্রিক জীবন যাপন করলে ডায়বেটিস থাকা সত্তে¡ও মানুষ সুস্থ্য জীবন যাপন করেত পারে।

    নাজমুন নাহার বলেন, গর্ভাবস্থায় যেসব নারীরা ডায়বেটিসে আক্রান্ত হয় পরবর্তীতে তাদের মধ্যে ৫০% নারী স্থায়ী ডায়বেটিসে আক্রান্ত হয় যা অত্যান্ত আশংকাজনক।

    শুভাগত চৌধুরী বলেন, যে সমস্ত সমস্যার কারণে মানুষ মারা যায় তার মধ্যে ডায়বেটিস আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বর্তমান বিশ্বে ৯ম অবস্থানে আছে। তিনি বলেন, গর্ভাবস্থায় ডায়বেটিস আক্রান্ত হওয়া বর্তমানে একটি বড় সমস্যা এবং সমস্যার কারন হল অপরিকল্পিতভাবে গর্ভধারন। গর্ভাবস্থায় নারী পর্যাপ্ত পুষ্টি না পাওয়ার কারণে এই সমস্যা তৈরী হয় এবং এ কারণে শিশু ডায়বেটিস আক্রান্ত হয়। এ জন্য এবারের বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারন করা হয়েছে সকল গর্ভধারণ হোক পরিকল্পিত।