• ওয়ালটন এ্যাম্বাসি কাপ ফুটবলে দক্ষিন কোরিয়া চ্যাম্পিয়ন


    ক্রীড়া প্রতিবেদক : ওয়ালটন এ্যাম্বাসি কাপ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে দক্ষিন কোরিয়া। গতকাল শনিবার বিকেলে ফাইনালে তারা টাইব্রেকারে সৌদী আরবকে হারিয়েছে ৫-৪ গোলে। নির্ধারিত সময়ে খেলা ১-১ গোলে শেষ হয়। এ টুর্নামেন্টের আগের আসরেও চ্যাম্পিয়ন ছিলো দক্ষিন কোরিয়া।

    রাজধানীর উত্তরায় আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন হেড কোয়ার্টার্স মাঠে ফাইনাল শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ী দলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন আর্চবিশপ জর্জ কোচারি। বিশেষ অতিথি ছিলেন আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন হেডকোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত আইজিপি মোশাররফ হোসেন, ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক এস এম জাহিদ হাসান এবং এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার প্রমুখ।

    এর আগে শুক্রবার ঢাকার উত্তরায় আর্ম পুলিশ ব্যাটালিয়ন মাঠে শুরু হয় দুদিনের এই টুর্নামেন্ট। প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহা-পরিচালক শাহ আহমেদ শফী, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, ওয়ালটনের ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ইউনিট (আইবিইউ) প্রেসিডেন্ট এডওয়ার্ড কিম প্রমুখ।

    শনিবার দ্বিতীয় দিনে প্রথম সেমিফাইনালে জাতিসংঘ দলকে ট্রাইব্রেকারে ২-১ গোলো হারিয়ে ফাইনালে ওঠে কোরিয়া। আর সুইডেনকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গী হয় সৌদি আরব। ১-১ গোলে ড্র হলে ফাইনাল গড়ায় ট্রাইব্রেকারে। টাইব্রেকারে ৫-৪ ব্যবধানে সৌদি আরবকে হারিয়ে শিরোপা অক্ষুন্ন রাখে কোরিয়া। আর রানার্স আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় সৌদি আরবকে।

    টুর্নামেন্টে দূঢ় হাতে গোলপোস্ট আগলে গ্লোল্ডেন গ্লাভস পান কোরিয়ার গোলরক্ষক। সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরষ্কার জেতেন সৌদি আরবের ফরোয়ার্ড সাদ। আর গোল্ডেন বল পান সুইডেনের নারী ফুটবলার জোহানা জনসন।

    উল্লেখ্য, ‘স্পোর্টস ফর পিস’ স্লোগানে শুক্র ও শনিবার চলে ওই প্রতিযোগিতা। এতে অংশ নেয় যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, অস্ট্রেলিয়া, সুইডেন, নরওয়ে, কোরিয়া, ইরাক, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনাম, মালদীপ, ভূটান, ফিলিস্তিন দূতাবাসের ১৩টি দল। ছিলো জাতিসংঘ, বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং ক‚টনৈতিক পুলিশের ৩টিসহ মোট ১৬ দল। প্রতিযোগিতার টাইটেল স্পন্সর ছিলো বাংলাদেশি মাল্টিন্যাশনাল ব্র্যান্ড ওয়ালটন।

    Spread the love
    Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial